1. [email protected] : বাংলার কন্ঠ প্রতিবেদক : বাংলার কন্ঠ প্রতিবেদক
  2. [email protected] : বাংলারকন্ঠ : বাংলারকন্ঠ
  3. [email protected] : বাংলারকন্ঠ.কম : বাংলারকন্ঠ.কম
বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন

ব্যাংক ও বীমায় তিন ‘অভাগা’ কোম্পানি

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১
  • ৩১ বার দেখা হয়েছে
share

আগেরদিন বড় পতন হলেও আজ সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার পুঁজিবাজার ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আজ বড় উত্থানে শেষ হয়েছে উভয় বাজারের লেনেদেন।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, দুদিন টানা পতনের পর আজ শঙ্কা নিয়েই শুরু হয় দিনের লেনদেন। ৩৬ মিনিটের মধ্যে সূচব ৩৪ পয়েন্ট কমে যাওয়ায় তৈরি হয় ভীতি। তবে সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়াতে সময় লাগেনি। শেষ পর্যন্ত প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সূচক বেড়েছে প্রায় ৫৭ পয়েন্ট।

আগেরদিন ব্যাংক ও বীমা খাতের পতনের মাতম খাকলেও আজ উভয় খাতেই ছিল উত্থানের জোয়ার। উভয় খাতের শেয়ারে ছিল বিনিয়োগকারীদের উচ্ছাস।

ব্যাংক খাতের শেয়ার:

ডিএসইতে আজ সবচেয়ে বেশি দর বৃদ্ধি পেয়েছে এমন ১০টি কোম্পানির মধ্যে ব্যাংক খাতের ছিল ডাচ বাংলা ব্যাংক। আর ২০টি কোম্পানির মধ্যে ছিল রূপালী ব্যাং ও এবি ব্যাংক।

এর মধ্যে দিনের সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছে যায় ডাচ বাংলা ও রূপালী ব্যাংকের শেয়ার দর। আর এবি ব্যাংকের দর বেড়েছে ৭.৯৭ শতাংশ।

এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে তলানিতে পড়ে থাকা এনবিএলের ডিভিডেন্ড ঘোষণার তারিখ জানানোর পর আজ দর বেড়েছে ৬.৪৯ শতাংশ। এর বাইরে প্রাইম ব্যাংকের দর ৪.৫৪ শতাংশ, এনসিসি ব্যাংকের ৩.৫৭ শতাংশ, যমুনা ব্যাংকের দর ৩.৪৪ শতাংশ, আইএফআইসির দর বেড়েছে ৩.২২ শতাংশ বেড়েছে।

তবে দর বৃদ্ধির মধ্যেও হতাশ করেছে মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক। ব্যাংকটির শেয়ার দর কমেছে ১০ শতাংশ। অন্যদিকে ব্যাংক এশিয়া ও উত্তরা ব্যাংকের দাম ছিল অপরিবর্তিত।

বীমা খাতের শেয়ার:

টানা প্রায় এক সপ্তাহের টালমাটাল অবস্থায় এই খাতের শেয়ারধারীদের পকেট ফাঁকা করে দিয়েছিল। পতন থামার পাশাপাশি দরে উত্থানে তারা আস্থা বিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন। হারানো টাকাও কিছুটা ফিরে এসেছে।

সবচেয়ে বেশি দাম বাড়া ১০ কোম্পানির মধ্যে দুটি ও ২০ কোম্পানির মধ্যে ছিল ছয়টি বীমা খাতের। এর মধ্যে শতকরা হিসেবে সবচেয়ে বেশি বেড়েছে রিলায়েন্স ও গ্রিনডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের দর। গত কয়েক দিনে ৩০ শতাংশ বা তার চেয়ে বেশি দর হারিয়ে ফেলা কোম্পানি দুটিই প্রায় ১০ শতাংশ দর ফিরে পেয়েছে।

রিলায়েন্সের দর ৮৪ টাকা ৩০ পয়সা থেকে বেড়ে হয়েছে ৯২ টাকা ৭০ পয়সায়। অন্যদিকে গ্রিনডেল্টার দাম ১০৭ টাকা ৮০ পয়সা থেকে বেড়ে উঠেছে ১১৮ টাকা ৫০ পয়সায়।

অন্যান্য কোম্পানির মধ্যে এক দিনে দর বৃদ্ধির সর্বোচ্চ সীমায় উঠেছে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স। এছাড়া ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের দর বেড়েছে ৯.৩৬, প্রগতির ৮.২২, পূরবী জেনারেলের ৭.৭৯, বিআইএনসিএলের ৭.১৭, এশিয়ানের ৬.৮৯, ক্রিস্টালের ৫.৪৬, সন্ধানীর ৫.৩, এক্সপ্রেসের ৫.১৮, প্রাইমের ৫.১২, ইসলামীর ৪.৯৯, ফিনিক্সের ৪.৯৮, রূপালীর ৪.৯৬, মার্কেন্টাইলের ৪.৮৮ শতাংশ দাম বেড়েছে।

তবে বীমা খাতের শেয়ার দরে জোয়ার থাকলে আজ দর কমেছে নর্দার্ন ইন্স্যুরেন্সের। কোম্পানিটির রেকর্ড ডেটের পর আজ দর কমেছে ২ টাকা ৩০ পয়সা বা ৩.৬৬ শতাংশ। অন্যদিকে, দর হারিয়েছে প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সও। এর আগে টানা চমক দেখানো কোম্পানিটি আজ দর হারিয়েছে ২ টাকা বা ১ শতাংশ।

নর্দার্ন ইন্সুরেন্সের যারা ডিভিডেন্ড নিয়েছে, তারা আজ হতাশায় রয়েছে। কারণ কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। সেই হিসাবে এর দর কমার কথা ১ টাকা। কিন্তু দর কমেছে ২ টাকা ৩০ পয়সা।

কোম্পানিটি যদিও এবছর আগের বছরের সমপরিমাণ ডিভিডেন্ড দিয়েছে, কিন্তু আয় বেশি করেছে। অন্যদিকে, চলতি অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকেও কোম্পানিটি আগের বছরের তুলনায় আয় বেশি করেছে। তারপরও দর কমে গেছে।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ