1. [email protected] : বাংলার কন্ঠ প্রতিবেদক : বাংলার কন্ঠ প্রতিবেদক
  2. [email protected] : বাংলারকন্ঠ : বাংলারকন্ঠ
  3. [email protected] : বাংলারকন্ঠ.কম : বাংলারকন্ঠ.কম
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৫:০৫ অপরাহ্ন

বীমা খাতের চমক, ডিভিডেন্ডে নতুন দৃষ্টান্ত

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৮ মে, ২০২১
  • ২৪ বার দেখা হয়েছে
Insurance 1

দেশের পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের মতো বীমা খাতের কোম্পানিগুলোও ডিভিডেন্ড ঘোষণায় চমক দেখাচ্ছে। ব্যাংকখাত যদিও ডিভিডেন্ড না দেয়ার ‘কালো দাগ’ এবারও মুছতে পারেনি, বীমা খাত ডিভিডেন্ড না দেয়ার ‘কালো দাগ’ এবার মুছে ফেলেছে। এমনকি ব্যাংক খাতে এবছর ৫ শতাংশ ডিভিডেন্ড দেয়ার দৃষ্টান্ত থাকলেও বীমা খাতে এখন পর্যন্ত ১০ শতাংশের কম ডিভিডেন্ড দেয়ার দৃষ্টান্ত তৈরি হয়নি।

বীমা খাতে তালিকাভুক্ত ৫০টি কোম্পানির মধ্যে এ পর্যন্ত ২০টি কোম্পানি ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ অর্থবছরের জন্য ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। যদিও সবগুলো কোম্পানিই সাধারণ বীমার। তবে ১টি সাধারণ বীমার সাথে ১টি জীবন বীমা সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য অন্তবর্তীকালীন ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। কোম্পানি দুটি হলো এক্সপ্রেস ইন্সুরেন্স ও পদ্মা লাইফ ইন্সুরেন্স। এক্সপ্রেস ইন্সুরেন্স পুঁজিবাজারে নতুন তালিকাভূক্ত। প্রথমবার ডিভিডেন্ড দিল। আর পদ্মা লাইফ দীর্ঘ চার বছর পর বিনিয়োগকারীদের ডিভিডেন্ডের মুখ দেখাল।

ডিভিডেন্ড ঘোষণা করা ২০টি সাধারণ বীমার মধ্যে ৯টির ডিভিডেন্ড আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। ১০টির ডিভিডেন্ড আগের বছরের সমপরিমাণ রয়েছে। ১টির ডিভিডেন্ড আগের বছরের চেয়ে কমেছে। কমার কোম্পানিটি হলো নিটল ইন্সুরেন্স। নিটল ইন্সুরেন্স আগের বছর ১৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিলেও এবছর ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে।

অন্যদিকে, গতবছর ডিভিডেন্ড না দেয়া প্রাইম ইন্সুরেন্স এবছর ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়ে বিনিয়োগকারীরে আস্থায় ফিরেছে।

১) গ্রীনডেল্টা ইন্সরেন্স: সমাপ্ত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ২৪.৬০ শতাংশ ক্যাশ ও ৭.৫০ শতাংশ বোনাস মিলে ৩২ শতাংশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ অর্থবছরে কোম্পানিটি ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ১৫ শতাংশ ক্যাশ ও ৫ শতাংশ বোনাস মিলে ২০ শতাংশ। এবছর কোম্পানিটির ডিভিডেন্ড বেড়েছে ৬০ শতাংশ।

২) প্যারামাউন্ট ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ২০ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ অর্থবছরে কোম্পানিটি ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ২ শতাংশ ক্যাশ ও ২ শতাংশ বোনাস। এবছর কোম্পানিটির ডিভিডেন্ড বেড়েছে ৪০০ শতাংশ।

৩) প্রাইম ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে কোম্পানিটি কোন ডিভিডেন্ড দেয়নি। সেই হিসাবে কোম্পানিটির ডিভিডেন্ড বেড়েছে ১০০ শতাংশ।

৪) ক্রিস্টাল ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানিটি ২০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির পর কোম্পানিটি প্রথম ডিভিডেন্ড দিল। সেই হিসাবে কোম্পানিটির ডিভিডেন্ড বেড়েছে ১০০ শতাংশ।

৫) সিটি জেনারেল ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে কোম্পানিটি ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ৫ শতাংশ ক্যাশ। কোম্পানিটির ডিভিডেন্ড বেড়েছে ১০০ শতাংশ।

৬) প্রভাতী ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১৭ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ১২ শতাংশ ক্যাশ। ডিভিডেন্ড বেড়েছে ৪১.৬৬ শতাংশ।

৭) পিপল ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১১ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ৮ শতাংশ ক্যাশ। ডিভিডেন্ড বেড়েছে ৩৭.৫০ শতাংশ।

৮) বিএনআইসিএল: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১২ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ১৫ শতাংশ ক্যাশ। ডিভিডেন্ড বেড়েছে ২৫ শতাংশ।

৯) জনতা ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ৬ শতাংশ ক্যাশ ও ৫ শতাংশ বোনাস মিলে ডিভিডেন্ড দিয়েছে ১১ শতাংশ। আগের অর্থবছরে ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ১০ শতাংশ ক্যাশ। ডিভিডেন্ড বেড়েছে ১০ শতাংশ।

ডিভিডেন্ড অপরিবর্তিত রয়েছে যেসব কোম্পানির:

১) অগ্রণী ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ৫ শতাংশ ক্যাশ ও ৫ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে ডিভিডেন্ড দিয়েছিল ১০ শতাংশ ক্যাশ।

২) এশিয়া প্যাসিফিক ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরেও কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

৩) কন্টিনেন্টাল ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ৬ শতাংশ ক্যাশ ও ৪ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের ২০১৯ হিসাবছরে কোম্পানিটি ৫ শতাংশ ক্যাশ ও ৫ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

৪) ইস্টার্ন ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ২০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের ২০১৯ অর্থবছরেও কোম্পানিটি ২০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

৫) ইস্টল্যান্ড ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ৭ শতাংশ ক্যাশ ও ৩ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরেও কোম্পানিটি ৫ শতাংশ ক্যাশ ও ৫ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

৬) রিলায়েন্স ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানিটি ২৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে কোম্পানিটি ২৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

৭) রূপালী ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরেও কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

৮) তাকাফুল ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরেও কোম্পানিটি ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

৯) ইউনাইটেড ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১১ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরেও কোম্পানিটি ১১ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

১০) ইসলামি ইন্সুরেন্স: সমাপ্ত ২০২০ অর্থবছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ বোনাস ডিভিডেন্ড দিয়েছে। আগের অর্থবছরে কোম্পানিটি ৫ শতাংশ ক্যাশ ও ৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছিল।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ