1. [email protected] : বাংলারকন্ঠ : বাংলারকন্ঠ
  2. [email protected] : বাংলারকন্ঠ.কম : বাংলারকন্ঠ.কম
  3. [email protected] : nayan : nayan
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৯:০৭ অপরাহ্ন

সাগরিকার বাবা-মাকে টিভি দিলো ওয়ালটন

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ২৩ বার দেখা হয়েছে

স্পোর্টস ডেস্ক : চলমান অনূর্ধ্ব-১৯ নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সর্বোচ্চ গোলদাতা মোসাম্মত সাগরিকা। এ পর্যন্ত তিনি চার গোল করেছেন। তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভর করে বাংলাদেশ পৌঁছে গেছে ফাইনালে। কিন্তু সাগরিকার বাবা চায়ের দোকানদার মোহাম্মদ লিটন আলীর মেয়ের খেলা দেখার মতো টেলিভিশন ছিল না। প্রতিবেশীর কাছ থেকে টেলিভিশন ধার করে এনে দেখেছিলেন মেয়ের খেলা। যে ম্যাচে সাগরিকা জোড়া গোল করে গর্বিত করেছেন তার বাবা-মাকে।

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর শুনে সাগরিকার বাবা-মাকে টেলিভিশন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দেশের জনপ্রিয় ইলেট্রনিক্স, ইলেট্রিক্যাল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রিজ, পিএলসি।

খবর শুনেই ঠাকুরগাঁওয়ে সাগরিকার বাবার সঙ্গে যোগাযোগ করেন ওয়ালটনের জ্যেষ্ঠ নির্বাহী পরিচালক এফ.এম. ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)। এরপর ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল থেকে আজ বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) ভোরে ঢাকায় আসেন সাগরিকার বাবা মোহাম্মদ লিটন আলী ও মা আঞ্জু বেগম। সকালে মিরপুরের মাজার রোডস্থ ওয়ালটন কমপ্লেক্সে এই দম্পতির হাতে ওয়ালটনের ৩২ ইঞ্চি অ্যান্ড্রয়েড টেলিভিশন তুলে দেন এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) ও রাইজিংবিডির নির্বাহী সম্পাদক তাপস রায়। এ সময় ওয়ালটনের জ্যেষ্ঠ অতিরিক্ত পরিচালক এসএম আতিকুর রহমান ও অতিরিক্ত পরিচালক মামুন মাহাদীসহ অন্যান্য কর্মাকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

টেলিভিশন পেয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত সাগরিকার বাবা। তিনি বলেন, ‘আমি কল্পনাও করিনি ওয়ালটন এভাবে আমাদের ডেকে এনে টেলিভিশন উপহার দেবে। আমরা ওয়ালটনের কাছে কৃতজ্ঞ। আমি এখন মেয়ের খেলা এই টেলিভিশনে দেখতে পারব।’

শুধু সাগরিকায় নয়, এর আগে মেয়েদের বিভিন্ন সাফল্যের পর নারী দলের ফুটবলারদের ওয়ালটন সামগ্রী দিয়ে উৎসাহিত করেছে ওয়ালটন। সেই ধারাবাহিকতায় এবার সাগরিকার বাবা-মাকে টেলিভিশন দেওয়ার পর এফ.এম. ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি দেশের ক্রীড়াঙ্গনকে নতুন জায়গায় নিয়ে যাওয়ার জন্য। এটা আমাদের দায়বদ্ধতা। আমাদের টিমের মধ্যে সাগরিকা খুব ভালো খেলোয়াড়। তার গোলে ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। আমি বিশ্বাস করি সাগরিকারা ভালো খেলবে। সাগরিকার বাবা অন্যের টেলিভিশনে মেয়ের খেলা দেখেন। এই খবর পেয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিই তাকে টেলিভিশন দেবার। সাগরিকার বাবা-মা যেন তার মেয়ের খেলাটা ওয়ালটনের টেলিভিশনে দেখতে পারে সেই ব্যবস্থা করেছি।’

উল্লেখ্য, আজ সন্ধ্যা ৬টায় কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। জিততে পারলে বয়সভিত্তিক সাফের আরও একটি শিরোপা শোকেসে উঠবে বাংলাদেশের। এর আগে ২০১৮, ২০২১ ও ২০২৩ সালে শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ