1. [email protected] : বাংলারকন্ঠ : বাংলারকন্ঠ
  2. [email protected] : বাংলারকন্ঠ.কম : বাংলারকন্ঠ.কম
  3. [email protected] : nayan : nayan
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৯:৪৫ অপরাহ্ন

‘বেস্ট এম্প্লয়ি অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন ওয়ালটনের ২১৯ কর্মকর্তা

  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৩৮ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : কর্মীদের সফলতার স্বীকৃতি প্রদান এবং তাদের কর্মস্পৃহা আরো বেগবান করতে ২১৯ জন কর্মকর্তাকে পুরস্কৃত করেছে বাংলাদেশি মাল্টিন্যাশনাল ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড ওয়ালটন। কোম্পানিতে ওই কর্মকর্তাদের ডেডিকেশন, প্যাশন, পরিশ্রম ও অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে তাদের পুরস্কার দিয়েছে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, তিন ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন বিভাগ ও প্রোডাক্টের আওতায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ২১৯ জন কর্মকর্তাকে গত বছরের ডিসেম্বর মাসের জন্য ‘বেস্ট এম্প্লয়ি অ্যাওয়ার্ড’ দেওয়া হয়। তাদের মধ্যে প্রোডাকশন প্ল্যান্টের কর্মপ্রক্রিয়ায় কস্ট ইনোভেশন আইডিয়া দেওয়ার স্বীকৃতি হিসেবে বিভিন্ন প্রোডাক্টের অধীনে ১৫ জন কর্মকর্তাকে দেওয়া হয় বিশেষ পুরস্কার।

বুধবার (১৭ জানুয়ারি, ২০২৪) বিকেলে গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসি’র হেডকোয়ার্টার্সে এক অনুষ্ঠানে তাদেরকে পুরস্কৃত করা হয়। অনুষ্ঠানে পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট, সম্মাননা স্মারক ও চেক তুলে দেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) এস এম মাহবুবুল আলম। অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন ওয়ালটন হাই-টেকের চেয়ারম্যান এস এম শামছুল আলম।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন—ওয়ালটন হাই-টেকের অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এএমডি) মেজর জেনারেল (অব.) ইবনে ফজল শায়েখুজ্জামান, ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজের এএমডি প্রকৌশলী লিয়াকত আলী, ওয়ালটন হাই-টেকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. ইউসুফ আলীসহ প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ওয়ালটনের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর দেশের জনপ্রিয় অভিনেতা আজিজুল হাকিম।

পুরস্কারপ্রাপ্ত সদস্যদের উদ্দেশে ওয়ালটন হাই-টেকের চেয়ারম্যান এস এম শামছুল আলম বলেন, আপনারা এই প্রতিষ্ঠানের প্রাণ। আপনাদের কর্মদক্ষতায় এগিয়ে যাচ্ছে স্বপ্নের প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। আপনার সুস্বাস্থ্য, সুন্দর ও নিরাপদ জীবন আমাদের একমাত্র কাম্য। আপনাদের নিয়ে এত দীর্ঘ পথ সফলতার সঙ্গে আমরা পাড়ি দিয়েছি। আপনাদের মেধা, শ্রম আর ঘামের প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। আমাদের প্রত্যাশা—এভাবেই একসঙ্গে সফলতার শিখরে পৌঁছে যাবো।

পুরস্কারপ্রাপ্তদের অভিনন্দন জানিয়ে ওয়ালটন হাই-টেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম মাহবুবুল আলম বলেন, এখন দক্ষতার যুগ। বর্তমান প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে নিজেকে টিকিয়ে রাখতে হলে দক্ষতা বৃদ্ধি করতে হবে। দক্ষতার বিকল্প নেই। দক্ষ হলে কেউ আমাদের পেছনে ফেলতে পারবে না।

ওয়ালটন পরিবারের সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘কোম্পানিতে আপনাদের ত্যাগ এবং অসামান্য অবদান অনস্বীকার্য। কর্মই আপনাদেরকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। পুরস্কারের এই ধারাবাহিকতা চলমান থাকবে।’ পাশাপশি তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে গুরুত্বপূর্ণ দিকনিদের্শনা প্রদান করেন।

মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয় পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ